1. Hi Guest
    Pls Attention! Kazirhut Accepts Only Bengali (বাংলা) & English Language On this board. If u write something with other language, you will be direct banned!

    আপনার জন্য kazirhut.com এর পক্ষ থেকে বিশেষ উপহার :

    যে কোন সফটওয়্যারের ফুল ভার্সন প্রয়োজন হলে Software Request Center এ রিকোয়েস্ট করুন।

    Discover Your Ebook From Our Online Library E-Books | বাংলা ইবুক (Bengali Ebook)

Islamic প্রশ্নোত্তরে ইসলাম

Discussion in 'Role Of Islam' started by arn43, Dec 9, 2015. Replies: 51 | Views: 1783

  1. arn43
    Offline

    arn43 Kazirhut Elite Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 18, 2013
    Messages:
    28,460
    Likes Received:
    4,027
    Gender:
    Male
    Reputation:
    951
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    খুব স্বাভাবিক একটা কৌতুহল এটা। মানুষ মারা গেলে কেনো তাদের মুখ ঢেকে দেয়া হয়? এর ধর্মীয় ব্যাখ্যাই বা কি? কিংবা ধর্মীয়ভাবে এর হুকুম বা নির্দেশনা কি রয়েছে? উপরের হাদিস দ্ধারা এর করনীয় বিষয় সম্মন্ধে জানতে পেরেছি। জানতে পেরেছি এর দিক নির্দেশনা।
     
  2. arn43
    Offline

    arn43 Kazirhut Elite Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 18, 2013
    Messages:
    28,460
    Likes Received:
    4,027
    Gender:
    Male
    Reputation:
    951
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    QA-010

    প্রশ্ন: ‘তোমরা কম সম্পদ ও অধিক সন্তান হতে আল্লাহর কাছে পানাহ চাও’ এ হাদীছটি কি ছহীহ?

    উত্তর: বর্ণনাটি যঈফ (যঈফুল জামে‘ হা/২৬৪১; সিলসিলা যঈফাহ হা/২৫৯২)।
     
  3. arn43
    Offline

    arn43 Kazirhut Elite Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 18, 2013
    Messages:
    28,460
    Likes Received:
    4,027
    Gender:
    Male
    Reputation:
    951
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    আমাদের এই সমাজের অনেকের মাথায়ই একটা ভুল ধারনা ঢুকিয়ে দেয়া হয়েছে যে, অধিক সন্তান আল্লাহর পক্ষ থেকে অভিশাপ। আর এই অভিশাপ থেকে বাঁচার জন্য আল্লাহর কাছে অধিক সন্তান না দেয়ার জন্য পানাহ চাইতে হবে। কথাটা প্রচারের সময় খুব কৌশলে এটাকে হাদিস হিসাবে প্রচার করে দেয়া হচ্ছে। কিন্তু বাস্তবে এর সাথে হাদিসের কোন সম্পর্কই নেই। বরং অধিক সন্তান যে আল্লাহর দয়া সে ব্যাপারে বিভিন্ন হাদিস থেকে প্রমান পাওয়া যায়।
    ঠিক একইভাবে কম সম্পদ থাকা কোনো পূন্যের কাজ নয়। অনেকেই বলে থাকেন, যাদের সম্পদ কম তারা আগে বেহেস্তে চলে যাবে... কথাটা ঠিক নয়। বরং যাদের আল্লাহ রাব্বুল আলামিন ধন দান করেছেন, সেটাকে আল্লাহর রহমত হিসাবে ধরে নিতে হবে। কেননা তাদের এই ধন সঠিকভাবে ব্যায়ের জন্য রয়েছে অসীম নেকী, যেই নেকীর বিনিময়ে তারা বেহেস্তে আগে যাবার সুযোগ রয়েছে। তবে হ্যাঁ, যদি সম্পদের সঠিক ব্যবহার কেউ না করে, তবে সে সম্পদ তাকে বেহেস্ত থেকে অনেক দূরে ঠেলে দিবে...
    সুতরাং প্রশ্নে উল্লেখিত বিষয়টি হাদিসের অন্তর্গত নয়। এটা একটা জাল হাদীস... আমাদেরকে অবশ্যই ধর্মীয় বিধি-নিষেধ পালনের ক্ষেত্রে একমাত্র সহিহ হাদিসেরই অনুসরণ করতে হবে...
     
  4. arn43
    Offline

    arn43 Kazirhut Elite Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 18, 2013
    Messages:
    28,460
    Likes Received:
    4,027
    Gender:
    Male
    Reputation:
    951
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    QA-011

    প্রশ্ন : সর্বনিম্ন কতজন মুছল্লী হলে জুম‘আ কায়েম করা যায়?

    উত্তর: সর্বনিম্ন দু’জন অর্থাৎ ইমামের সাথে মাত্র একজন মুছল্লী থাকলে জুম‘আর ছালাত কায়েম করা যাবে (মির‘আত ৪/৪৪৯-৫০)। কারণ জুম‘আর ছালাত অন্যান্য ফরয ছালাতের ন্যায় একটি ফরয ছালাত। আর ইমামের সাথে সর্বনিম্ন একজন থাকলেই জামা‘আতের ছওয়াব অর্জিত হয়। মূলত: সংখ্যা নির্ধারণ করার ক্ষেত্রে কোন দলীল নেই। অতএব যদি দু’জন থাকেন, তাহ’লে একজন খুৎবা দিবেন আর অন্যজন হবেন শ্রোতা। অত:পর দু’জনে জামা‘আত কায়েম করবেন। কা‘ব ইবনু মালেক বলেন, সর্বপ্রথম যিনি আমাদের নিয়ে জুম‘আর ছালাত আদায় করেন তিনি হ’লেন আস‘আদ বিন যুরারাহ্ ...। জিজ্ঞেস করা হ’ল, সে সময় আপনারা কতজন ছিলেন? তিনি উত্তরে বলেন, চল্লিশ জন ছিলাম (ছহীহ্ আবুদাউদ হা/১০৬৯; ইরওয়াউল গালীল হা/৬০০)। উক্ত বর্ণনায় ঐ জুম‘আর ছালাতে কতজন উপস্থিত ছিলেন তা বুঝানো হয়েছে। সর্বদা চল্লিশ জনই হ’তে হবে তা বলা হয়নি। উল্লেখ্য, ‘চল্লিশ জন অথবা এর চেয়ে বেশী সংখ্যক মুছল্লী উপস্থিত হলে জুম‘আ, ঈদুল আযহা বা ঈদুল ফিৎর আদায় করতে হবে’ মর্মে জাবের (রা:) বর্ণিত আছারটি অত্যন্ত যঈফ (দারাকুৎনী, ইরওয়াউল গালীল হা/৬০৩)।
     
  5. arn43
    Offline

    arn43 Kazirhut Elite Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 18, 2013
    Messages:
    28,460
    Likes Received:
    4,027
    Gender:
    Male
    Reputation:
    951
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    আমাদের গ্রামের পাশের গ্রামের একটা ঘটনা বলি...
    বেশ কিছুদিন আগে কোনো এক জুম্মাবারে নামাযের প্রায় ঘন্টাখানেক আগে হঠাত করেই চারিদিক অন্ধকার করে বজ্রপাত শুরু হয়। বেশ কিছুক্ষণ বজ্রের সেই ভয়াবহ গর্জন শেষে শুরু হয় ঝড়। সেই সাথে মুশলধারে বৃস্টি। নামযের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বেরোনোর উপায় থাকে না বেশীরভাগ মুসল্লীদেরই। মসজিদের একেবারে আশেপাশে যাদের বাড়ি তাদের কেউ কেউ ঝড় আর বৃস্টি উপেক্ষা করে মসজিদে আসতে পেরেছিলো। কিন্তু তাদের সংখ্যা ছিলো খুবই নগণ্য। সব মিলিয়ে জনা পনের হবে সংখ্যাটি। নামযের নির্দ্ধারিত সময় পেরিয়ে গেলেও প্রাকৃতিক এই দূর্যোগের কারনে তখনও ইমাম সাহেব এসে পৌঁছতে পারেননি মসজিদে। এমতাবস্থায় মুসল্লিদের মাঝে গুঞ্জন উঠে- কি করা যায় ? মুসল্লিদের মাঝে একাধিক লোক ছিলেন যারা খুৎবা দেয়ার যোগ্যতা রাখেন। কিন্তু তারা খুৎবা দিয়ে জুম্মা আদায় করবেন কিনা সেটা নিয়ে বেশ সংশয়ে ছিলেন। শেষ পর্যন্ত ঐদিন আর মসজিদে জুম্মার নামায আদায় হয়নি। যারা উপস্থিত হয়েছিলেন তাদের আলোচনার ভিত্তিতে ঐক্যমত্ত হয় যে সংখ্যা (৪০ জন) পুরা না হওয়ার প্রেক্ষিতে জুম্মা আদায় করা যাবেনা। যোহর আদায় করতে হবে...
    সেদিন তাদের ঐ সিদ্ধান্তটা সঠিক ছিলো না। সহিহ হাদিস অনুযায়ী তারা ওইদিন জুম্মা আদায় করতে পারতেন।
     
  6. arn43
    Offline

    arn43 Kazirhut Elite Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 18, 2013
    Messages:
    28,460
    Likes Received:
    4,027
    Gender:
    Male
    Reputation:
    951
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    QA-012

    প্রশ্ন : সঊদী আরবে ইমাম-মুক্তাদী সকলেই জানাযার ছালাতে একদিকে সালাম ফিরান। এটা কতটুকু সঠিক?

    উত্তর: অন্যান্য ছালাতের ন্যায় জানাযার ছালাতেও উভয় দিকে সালাম ফিরানোর ছহীহ হাদীছ রয়েছে। আব্দুল্ল্লাহ্ ইবনু মাস‘ঊদ (রা:) বলেন, লোকেরা তিনটি কাজ ছেড়ে দিয়েছে, যেগুলো রাসূল (ছা:) করতেন। তার একটি হচ্ছে, জানাযার ছালাতের সালাম অন্যান্য ছালাতের ন্যায় হওয়া (সনদ হাসান, বায়হাক্বী, ত্বাবারাণী, আলবানী, আহকামুল জানায়েয, মাসআলা নং ৮৪)। তবে শুধু ডান দিকেও সালাম ফিরানো যায় (দারাকুৎনী হা/১৮৩৯ ও ১৮৬৪; সনদ হাসান, আহকামুল জানায়েয, মাসআলা নং ৮৫)।
     
  7. arn43
    Offline

    arn43 Kazirhut Elite Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 18, 2013
    Messages:
    28,460
    Likes Received:
    4,027
    Gender:
    Male
    Reputation:
    951
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    এখানে শুধু নামাযে জানাযার সালামের ব্যাপারে প্রশ্ন উত্থাপিত হয়েছে, যার হাদিস ভিত্তিক জবাবও আমরা পেয়ে গেছি। দুইদিকে সালাম ফেরানোর ব্যাপারে যেমন হাদিস আছে, শুধু ডানদিকে সালাম ফেরানোরও আছে। হাদিসের বিশুদ্ধতার ব্যাপারে উভয় হাদিসই বিশুদ্ধ হিসাবে বিবেচিত হবার কারনে এই দুই পদ্ধতির যেকোন একটি পদ্ধতি অনুসরণ করলেই নামাযে জানাজা সঠিকভাবে আদায় হয়েছে বলে ধরে নেয়া যাবে।
    কিন্তু সমাজে এই নামাজে জানাজার আরো কিছু পদ্ধতি নিয়ে অনেক প্রশ্ন তথা মতানৈক্যের অবকাশ থেকেই যায়। নামাজে জানাজায় সুরা ফাতিহা পাঠ করা কতোটুকু জরুরী কিংবা সেটা আদৌ ঠিক কিনা তার মধ্যে অন্যতম। হয়তো ভবিষ্যতে এই বিষয়ের কোনো প্রশ্ন-উত্তরের মাধ্যমে বিষয়টা আমরা পরিষ্কার হতে পারবো।
     
  8. arn43
    Offline

    arn43 Kazirhut Elite Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 18, 2013
    Messages:
    28,460
    Likes Received:
    4,027
    Gender:
    Male
    Reputation:
    951
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    QA-013

    প্রশ্ন : জনৈক অসুস্থ ব্যক্তি সুস্থতা লাভ করলে মসজিদে ১০ শতক জমি দান করবেন বলে মানত করেন। কিন্তু সুস্থ হওয়ার পর উক্ত জমি মসজিদের পরিবর্তে গোরস্থানে দিতে চায়। এটা কি শরী‘আত সম্মত হবে?

    উত্তর: মসজিদের জন্য মানত করে থাকলে মসজিদেই দিতে হবে। কারণ মসজিদের জমি মসজিদের স্বার্থে ব্যবহার করাই উত্তম। তবে জমিটি মসজিদের জন্য তেমন কোন কাজে না আসলে উপকারিতার দিকে দৃষ্টি দিতে হবে। যদি কবরস্থানের জন্য বেশী উপকার বিবেচিত হয়, তাহ’লে সেখানে দিবে (ফিক্বহুস সুন্নাহ ‘ওয়াক্ফ’ অধ্যায় ৩/৩৮৫ পৃ )


     
  9. arn43
    Offline

    arn43 Kazirhut Elite Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 18, 2013
    Messages:
    28,460
    Likes Received:
    4,027
    Gender:
    Male
    Reputation:
    951
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    মা'নত ইসলাম ধর্মে বেশ গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়। কেউ যদি আল্লাহর নামে শপথ করে ধর্মীয় বিধি মোতাবেক কোনো কিছু মা'নত করে, তবে সেটা পুরো করা তার জন্য আবশ্যক হয়ে যায়। না হলে সে ফাসেক হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করে নিবে। এমন অনেক সময়ই হয়ে যায়, যে বিষয়ের ব্যাপারে মা'নত করা হয়েছে ধর্মীয় এবং সামাজিক প্রেক্ষাপটে তার গুরুত্ব কম, কিন্তু একই সাথে এর থেকে বেশী গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয়ের ব্যাপক অভাব সামাজিক ভাবে পরিলক্ষিত হচ্ছে। এমতাবস্থায় মা'নতকারী ইচ্ছা করলে তার সেই মা'নত পরিবর্তন করে নিতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে- প্রথম যে মা'নতটি করেছিলেন, সেটির গুরুত্ব কি কারনে হারাচ্ছে...
    উপরের উত্তরের প্রেক্ষিতে আমরা এটাই জানতে পেরেছি।
     
  10. arn43
    Offline

    arn43 Kazirhut Elite Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 18, 2013
    Messages:
    28,460
    Likes Received:
    4,027
    Gender:
    Male
    Reputation:
    951
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    QA-014

    প্রশ্ন : ইক্বামতের উত্তর দিতে হবে কি?

    উত্তর: ইক্বামতের উত্তর দিতে হবে। কারণ আযান ও ইক্বামত দু’টিকেই হাদীছে আযান বলা হয়েছে (বুখারী, মুসলিম, মিশকাত হা/৬৬২)। রাসূলুল্লাহ (সাঃ)বলেন, ‘মুওয়াযযিন যা বলে তোমরাও অনুরূপ বল’ (মুসলিম, মিশকাত হা/৬৫৭; আলোচনা দ্র: আলবানী, মিশকাত হা/৬৭০-এর টীকা)। অতএব মুওয়াযযিন ইক্বামতের সময় যা বলবেন, মুক্তাদীগণ তাই বলবেন। উল্লেখ্য, ইক্বামতের সময় ‘ক্বাদ ক্বা-মাতিছ ছালাহ’-এর জবাবে ‘আক্বা-মাহাল্লা-হু ওয়া আদা-মাহা’ বলা সংক্রান্ত হাদীছটি যঈফ। সুতরাং তা বলা যাবে না; বরং ‘ক্বাদ-ক্বা-মাতিছ ছালা-হ’ বলতে হবে (আবুদাঊদ, আলবানী, তাহক্বীক্ব মিশকাত হা/৬৭০-এর টীকা দ্রঃ । )
     

Pls Share This Page:

Users Viewing Thread (Users: 0, Guests: 0)